বাংলাদেশ, , রোববার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

চট্টগ্রাম মহানগর জামায়াতের আমীর শাহজাহানসহ ১২ জনকে কারাগারে প্রেরণ

  প্রকাশ : ২০১৯-০৮-৩১ ০১:০৩:২৫  

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

চট্টগাম মহানগরীর গোলপাহাড় মোড়ের সুবর্ণা আবাসিক এলাকার কথিত ‘গোপন বৈঠক’ থেকে আটক চট্টগ্রাম মহানগর জামায়াতের আমীর উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের মুহাম্মদ শাহজাহান সহ ১২ জনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনের বিস্ফোরক ও অস্ত্র আইনে পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করে পুলিশ আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে কারাগারে প্রেরণ করেছে।

শুক্রবার ৩০ আগস্ট পাঁচলাইশ থানায় বিস্ফোরক মামলা ও অস্ত্র আইনের মামলা দুইটি দায়ের করা হয়। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. শফি উদ্দিনের আদালতে তাদেরকে হাজির করা হলে আদালত সবাইকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাবুদ্দীন আহমেদ।

কারাগারে প্রেরিত আসামিরা হলেন- চট্টগ্রাম মহানগর জামায়াতের আমীর উখিয়ার রাজাপালং ইউনিয়নের মুহাম্মদ শাহজাহান (৫৪), সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম (৫৭), সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ উল্লাহ (৫৪), সদস্য মাহমুদুল আলম (৪৯), মো. ওসমান (৩৭), কর্মী আহমদ খালেক প্রকাশ খালেদ আনোয়ার (৪৫), মো. তৌহিদুল আনোয়ার সোহেল (৪৭), সদস্য আমির হোসেন (৫৫), সদস্য ফারুক আজম (৫৪), সিদ্দিকুর রহমান (৫৮), নাসির উদ্দীন (৬৮) ও জাকের হোসেন (৫৫)।

এ বিষয়ে পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম ভূঁইয়া বলেন, গত বৃহস্পতিবার ২৯ আগস্ট রাতে সুবর্ণা আবাসিক এলাকায় একটি বাসায় গোপন বৈঠক থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। আটককৃত ১২ জনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে বিস্ফোরক ও অস্ত্র আইনে দুইটি পৃথক মামলা দায়ের করা হয় এবং তাদের সাত দিনের রিমান্ড আবেদন জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার ২৯ আগস্ট রাত সাড়ে ৯টার দিকে পাঁচলাইশ থানাধীন সুবর্ণা আবাসিক এলাকার একটি বাসায় গোপন বৈঠক থেকে তাদের আটক করে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ।

এ সময় তাদের কাছ থেকে সাতটি ককটেল, একটি রাম দা, একটি কিরিচ, একটি চাপাতি, ১৮টি চকলেট বোমা, চারটি লোহার রড ও গোপন নথিপত্র উদ্ধার করা হয়।



ফেইসবুকে আমরা