বাংলাদেশ, , রোববার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

অবশেষে সিফাত উদ্ধার ; কক্সবাজার সদর মডেল থানায় দুই মুক্তিপণ দাবী সন্ত্রাসী অাটক

  প্রকাশ : ২০১৮-১০-২৬ ০৯:৫২:৫৮  

শহর প্রতিনিধি : সিবিএম 

ঢাকা ধানমন্ডি অাইডিয়াল কলেজের ছাত্র শহরের টেকপাড়ার বাসিন্দা ছাত্রলীগ নেতা সিফাতকে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ২ ঘটিকার সময় শহরে বৌদ্ধ মন্দিরের গেইট থেকে শহরের কুখ্যাত সন্ত্রাসী রহিম, লিংক রোড এলাকার রুবেল ও এন্ডারসন রোডের এলাকার মাহান্নুর মিলে বৌদ্ধমন্দিরের সামনে থেকে সিএনজিতে যোগে চোখ-মুখ বেঁধে খরুলিয়া এলাকায় নিয়ে অাটকে রাখা হয়। যার কাছ থেকে ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

এক পর্যায়ে মুক্তিপণের টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তারা সিফাতকে গুরুতর ভাবে মারধর করে। গভীর রাত হওয়ায় খরুলিয়া এলাকার কুখ্যাত সন্ত্রাসী নবাবের হাতে তুলে দেয়।পরে গত একরাত তার উপর অমানুষিক নির্যাতিত করা হয়।একপর্যায়ে অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে সিফাত মুক্তিপণে টাকা দেয়ার নাম করে কৌশলে তার ভাই বন্ধুদের জানালে তারা সিফাতকে জীবিত অবস্থায় ছিড়ামুড়া থেকে উদ্ধার করে আনে।

বর্তমানে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় সিফাতের পরিবারের পক্ষ থেকে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার এস অাই রাজিরবের হাতে দায়িত্ব রয়েছে। পুলিশের সহযোগিতায় রুবেল হোসাইন নাজেরী ও শাহলম নামে বর্তমানে দুই মুক্তিপণ দাবী অাসামী গ্রেফতার হয়েছে।

যাদেরকে ছাড়ানোর জন্য বিশাল ছিনতাই কারী চক্র ও মুক্তিপণ অাদায় কারী একটি সিন্ডিকেট কাজ করছে বলে জানা গেছে।

ককসবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মোরশেদ হোসাইন তানিম বলেন- এসব খবর কোন পত্রিকায় উঠবে না কারন সে ছাত্রলীগ করে। কক্সবাজার জেলায় ২২ থেকে ২৫ টি পত্রিকায় ৩০’০০০ হাজার সংবাদকর্মী অাছে।কিন্তু ভাল সংবাদ গুলো খবরে দেখি না।এখন কিছু সাংবাদিকরা সংবাদ খুজে খুজে কালেকশন করে তা তুলে ধরে না।তাদেরকে খবর ঘরে গিয়ে দিতে হয়।



ফেইসবুকে আমরা